কাশিমপুর কারাগারে হামলার পরিকল্পনা করছে আনসারুল্লাহ

নিউজ ডেস্ক : আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর টানা জঙ্গিবিরোধী অভিযানের মুখে আপাতত তৎপরতা অনেকটা স্তিমিত হলেও নীরবে সদস্যদের সংগঠিত করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিম (এবিটি)।

সংগঠনের দুই সদস্যকে গ্রেফতারের পর র‌্যাব জানিয়েছে, তারা কাশিমপুর কারাগারে হামলা চালিয়ে এবিটির আদর্শিক নেতা জসীমুদ্দীন রাহমানীকে ছিনিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করছে। পাশাপাশি তারা খিলাফত রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ১০ লাখ মানুষকে এবিটির সদস্য করার টার্গেট নিয়েছে।

শুক্রবার রাতে র‌্যাব-১ এর একটি দল গাজীপুর চৌরাস্তা এলাকা থেকে এবিটির সক্রিয় সদস্য রাশেদুল ইসলাম ওরফে স্বপন ও বিপ্লব হোসেন ওরফে হুজাইফাকে গ্রেফতার করে। জিজ্ঞাসাবাদে এসব পরিকল্পনার কথা র‌্যাবকে জানিয়েছে আটককৃতরা।

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর উত্তরায় র‌্যাব-১ এর সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন র‌্যাব কর্মকর্তারা। র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল তুহিন মাসুদ জানান, গ্রেফতার রাশেদুল এবিটির গাজীপুর জেলার সমন্বয়ক। অপরজন বিপ্লব হোসেন তার সহযোগী।

র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, এবিটির একটি গ্রুপ আদর্শিক নেতাসহ কারাবন্দি অপর সহযোগীদের ছিনিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনার পাশাপাশি তারা নতুন করে টার্গেট কিলিংয়েরও প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ জন্য আলোচিত ব্লগার ও তাদের দৃষ্টিতে নাস্তিকদের তালিকা ধরে হত্যার পরিকল্পনা ছিল। এসব লক্ষ্য বাস্তবায়নে এবিটির বর্তমান সদস্যরা অন্য জঙ্গি গ্রুপগুলোর সঙ্গেও যোগাযোগ করে যৌথ হামলার পরিকল্পনা করছিল।

র‌্যাব জানায়, বর্তমানে এবিটির অন্যতম প্রধান সমন্বয়ক তামিম আল-আদনানি বর্তমানে মালয়েশিয়াতে অবস্থান করছে বলে গ্রেফতার দু’জন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে। আদনানির নির্দেশে তারা দেশে অন্তত ১০ লাখ লোককে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য করার প্রধান ও মুখ্য পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নেমেছিল। এরা আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আল কায়দার ভারতীয় উপমহাদেশ শাখার (একিউআইএস) অনুকরণে দেশে খিলাফত প্রতিষ্ঠার জন্য এসব পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে এবিটির গ্রেপ্তার হওয়া ২ সদস্য উপস্থিত ছিলো।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "কাশিমপুর কারাগারে হামলার পরিকল্পনা করছে আনসারুল্লাহ"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*