চ​লতি মেয়াদে আয়কর দাতা ২০ লাখ করার লক্ষ্য: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : এই সরকারের চলতি মেয়াদ শেষ হওয়া আগেই আয়কর দাতার সংখ্যা ২০ লাখে উন্নীত করা লক্ষ্য রয়েছে বলে জানান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এখন এ সংখ্যা ১২লাখ।

আজ রবিবার রাজধানীর একটি হোটেলে ‘বৈষম্য ও দারিদ্র্য নিরসনে বাজেট ও অন্যান্য নীতি-কাঠামোর ভূমিকা’ শীর্ষক জাতীয় সংলাপে অর্থমন্ত্রী এ তথ্য জানান। সর্বদলীয় সংসদীয় গ্রুপ এ সংলাপের আয়োজন করে।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এসময় আরো বলেছেন, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এবং বিভিন্ন ধরনের আইন করেও সরকার দুর্নীতি দমনে খুব একটা এগোতে পারেনি। তিনি মনে করেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সবচেয়ে কার্যকর ব্যবস্থা হতে পারে অনলাইনে অর্থ লেনদেন ও টেন্ডার প্রক্রিয়া। সরকারের সব ক্ষেত্রে এ ব্যবস্থা চালু করা হলে দুর্নীতি কমানো সম্ভব। তিনি সরকারের সব বিভাগকে যার যার জায়গা থেকে যতটা সম্ভব কাজের ক্ষেত্রে অনলাইন পদ্ধতি চালু করার আহ্বানও জানান।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু অর্থমন্ত্রীকে একটি প্রস্তাব দেন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, এক কোটি টাকা কর দিতে পারেন এমন ৩০ হাজার করদাতা চিহ্নিত করা। এই প্রস্তাবটিকে স্বাগত জানান অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, এটি চমৎকার প্রস্তাব। কীভাবে এমন করদাতাদের চিহ্নিত করা যায়, সে পদক্ষেপ তিনি নেবেন।

অনলাইন পদ্ধতি কতোটা প্রয়োজনীয় সে কথা বলতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, তিনি সিলেটের একটি কলেজের সভাপতি ছিলেন। ওই কলেজে আগে যেখানে ভর্তি কার্যক্রম থেকে আয় হতো ৮ লাখ টাকা সেখানে যখন অনলাইন পদ্ধতি ভর্তি চালু করা হলো সেই আয় বেড়ে হলো ৮৩ লাখ টাকা। আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, অনলাইনে লেনদেন হলে চুরি ঠেকানো সম্ভব, চোর ধরা যায় এবং অর্থ যার কাছে যাওয়ার কথা তার কাছেই যায়। ফলে সরকার পরিচালনায় বাজেটের অপচয় হয় না।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সাংসদ দীপু মণি। বক্তব্য দেন সাবেক খাদ্যমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান (বিআইডিএস) এর গবেষণা পরিচালক বিনায়ক সেন।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "চ​লতি মেয়াদে আয়কর দাতা ২০ লাখ করার লক্ষ্য: অর্থমন্ত্রী"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*