জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন গুলিবিদ্ধ

নিউজ ডেস্ক: জয়পুরহাটে গতকাল দিবাগত রাতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সানোয়ার হোসেন নামে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তাঁকে বগুড়ার শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এনটিভির পুরোনো ছবি

জয়পুরহাটের সীমান্তবর্তী উপজেলা পাঁচবিবির শিমুলতলী পুলিশ বক্সের কাছে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সানোয়ার হোসেন (৪০) নামে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

গতকাল বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ সানোয়ার হোসেনের বাড়ি পাঁচবিবি উপজেলার আওলাই ইউনিয়নের বিনশিরা গ্রামে। তাঁর বাবার নাম মেছের আলী।

পুলিশের ভাষ্য, সানোয়ারের বিরুদ্ধে পাঁচবিবিসহ আশপাশের থানায় অস্ত্র, ডাকাতি, ছিনতাই, সন্ত্রাস, অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ১৮টি মামলা রয়েছে। তাঁর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের পর ঘটনাস্থল থেকে ছোরা, হাঁসুয়া, লাঠি, রডসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল দিবাগত রাতে একদল ডাকাত পাঁচবিবির জয়পুরহাট-হিলি সড়কের  শিমুলতলী  পুলিশ বক্সের কাছে সড়কের ওপর গাছের গুঁড়ি ফেলে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। গোপন সূত্রে এ খবর জানতে পেয়ে পুলিশ তৎক্ষনাৎ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়েই ডাকাতরা গুলি ছুঁড়তে থাকে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও শটগানের অন্তত ১০টি গুলি ছোঁড়ে। ওই সময় ‘ডাকাত সর্দার’ সানোয়ার গুলিবিদ্ধ হয়। তবে সহযোগীরা তাঁকে ফেলে অন্ধকারে পালিয়ে যায়।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল ইসলাম জানান,  গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সানোয়ারকে আটক করে প্রথমে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি ঘটার আশঙ্কায় সেখান থেকে তাঁকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন গুলিবিদ্ধ"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*