লোহাগড়ায় ভোটের জের, ধান ক্ষেতে পানি দেওয়ায় বাড়ি ভাংচুর-লুটপাট

লোহাগড়ায় ভোটের জের, বাড়ি ভাংচুর-লুটপাট

নিউজ ডেস্ক : নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার উলা গ্রামে ইরিধান ক্ষেতের জমিতে পানি দেওয়াকে কেন্দ্র করে তিন’টি বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। জড়িত সন্দেহে পুলিশ একজনকে আটক করেছে। বর্তমানে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
জানা গেছে, উপজেলার লক্ষ্মীপাশা ইউনিয়নের উলা গ্রামের রহমান শেখ’র ছেলে মামুন শেখ,আসাদ খা’র ছেলে সোহাগ খা ও লায়েক মীর’র ছেলে রাজু মীর তাদের স্থাপিত বরিং (সেচ পাম্প) দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চুক্তিতে বিভিন্ন কৃষকের ইরি ধানের জমিতে পানি সরবরাহ করে আসছিলো। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট না দেওয়ার অভিযোগে পরাজিত সাবেক চেয়ারম্যান বনী কাজী সমর্থিত বরিং মালিক গত সপ্তাহে হঠাৎ করে জমিতে পানি সরবরাহ বন্ধ করে দেয়। বিপাকে পড়া ভূক্তভোগী কৃষকরা বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনকে অবহিত করলে নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদরসার্কেল) তানজিলা সিদ্দিকা ও লোহাগড়া থানার ওসি গত ৩১ জানুয়ারী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ধানক্ষেতে পানি সরবরাহ করতে বোরিং (পাম্প) মালিকদের নির্দেশ দেন। পুলিশকে অবহিত করায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওইদিন রাত সাড়ে ৭ টার দিকে প্রতিপক্ষ বনি কাজী সমর্থিত মোস্তফা শেখ’র নেতৃত্বে ১৫-২০ জনের একদল দুর্বৃত্ত খোকন চৌধুরী সমর্থিত কৃষক তবিবর রহমান, লিটন ও টুটুল মোল্যার বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে নগদ টাকাসহ লুটপাট-ভাংচুর ও ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাতেই ডিবি পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। বর্তমানে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশসহ ডিবি পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
লোহাগড়া থানার ওসি শেখ আবু হেনা মিলন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য উলা গ্রামের দেলবার শেখের ছেলে আবুল কালাম শেখকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "লোহাগড়ায় ভোটের জের, ধান ক্ষেতে পানি দেওয়ায় বাড়ি ভাংচুর-লুটপাট"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*