সঙ্গী-সঙ্গিনী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভুল কোনটি?

নিউজ ডেস্ক : কিভাবে বুঝবেন যে একেবারে মনের মতো মানুষটিকে খুঁজে পেয়েছেন? আত্মার মানুষে বিশ্বাস করেন বা নাই করেন, নিঃসন্দেহে এটা মানুষের জীবনের সবচেয়ে বড় বিষয়। প্রত্যেকটা মানুষ জীবনের এক বিশেষ পর্যায়ে গিয়ে ভাবেন, তার জীবনের মনের মতো মানুষ কোনজন?

সারা জীবনের জন্য একজন মানুষকে বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত খুব সাধারণ বিষয় নয়। সব মানুষই চিন্তা-ভাবনা করে এ কাজটি করেন। তারা নিশ্চিত হতে চান, কোথাও কোনো ভুল হচ্ছে না।

তবুও ভুল বোধহয় ঘটেই থাকে। ৪২ শতাংশ বিয়ে বিচ্ছেদের পরিণতি দেখে। মনে হয়, ভুল সঙ্গী-সঙ্গিনী বেছে নেওয়ার কারণেই এমনটা ঘটেছে। আসলে এর পেছনে সঠিক কারণ কোনটি?

সোশাল মিডিয়া রেডট এর আলোচনায় বিষয়টি স্পষ্ট করার চেষ্টা করা হয়েছে। সেখানে মানুষ তার চিন্তা-ধারা ব্যক্ত করেছেন। কারো সঙ্গে আজীবনের জন্য থিতু হওয়ার সময় সবচেয়ে বড় যে ভুলটা মানুষ করে থাকে তা হলো, ভালোবাসা পাওয়ার জন্য বিয়ে করা এবং একাই ভালোবাসা নেওয়া।

আসলে একমাত্র ভালোবাসার কথা মাথায় রেখেই বিয়ের চিন্তা করেন সবাই। কেউ কেউ বলেছেন, বিয়ে কোনো ব্যবসায়ীক চুক্তি নয়। ৯০ শতাংশের মতে, এটা কোনো মজার বিষয় নয়। এটা আসলে পারস্পরিক বোঝাপড়ার বিষয়। অপরের সঙ্গে মানিয়ে চলার বিষয়। সন্তানের দেখভাল করা বা উপার্জন সবই বিবাহিত জীবনের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটা দুজন ব্যবসায়ীক অংশীদার বা প্রেমিক-প্রেমিকার সম্পর্কের চেয়েও বেশি কিছু।

বড় ভুল তাদের ক্ষেত্রেও দেখা যায় যারা সুখী দাম্পত্য জীবনের জন্য প্রয়োজনীয় বিষয়গুলোতে শর্ত মনে করে তা পূরণ করার চেষ্টা করতে থাকেন। আর অন্যান্য বিষয় তাদের কাছে মূল্যহীন হয়ে ওঠে। আসলে আপনার সঙ্গে মানানসই কিনা তার চেয়ে বেশি দেখা হয় মানুষটি ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, আইনজীবী নাকি পাইলট?

বিপরীত লিঙ্গের প্রতি আকর্ষণের কথা পুরনো আমল থেকেই চলে আসছে। এটা আসলে এমন এক বিষয় যেখানে দুজন ভিন্ন মানুষ সারাজীবন একসঙ্গে থাকার স্বপ্ন দেখেন। এক বিবাহ বিষয়ক বিশেষজ্ঞ বলেন, দুজনের একসঙ্গে টিকে থাকার কিছু শর্ত তো রয়েছেই। তবে আমি দেখেছি, দুজনের মধ্য যত মিল রয়েছে তারা তত বেশি সুখী হয়ে ওঠেন। একই ক্ষেত্রে অনেকের বিশ্বাস, অপরজনকে হয়তো নিজের মতো করে বদলে ফেলতে পারবেন। পুরুষরা বিয়ের সময় চিন্তা করেন স্ত্রী বাড়িতেই থাকবেন এবং সংসারের দেখভাল করবেন। আসলে এমন চিন্তা মাথায় রেখে বিয়ে করার অর্থ ভবিষ্যতকে ধ্বংসের মুখে নেওয়া।

আবার অনেকে একসঙ্গে থাকার পেছনে ভিন্ন যুক্তি তুলে ধরনে। অনেকের মতো, আপনি একা থাকার ভয়ে অন্য কারো সঙ্গে থাকার পথ বেছে নিয়েছেন। আরেকজ লিখেছেন, সব সম্পর্ক ভাঙে একটা বিশেষ কারণে। তা হলো, অপরজন সহনশীল নন।

তবে এসবের মাঝে ভালোবাসার কথা ভুলে গেলে চলবে না। সমাধানের পথ দেখাতে একজন লিখেছেন, মনের কথা শুনুন। সেই সঙ্গে নিশ্চিত করুন, আপনার মস্তিষ্ক সুষ্ঠুভাবে বিষয়টি নিয়ে ভাবছে। সূত্র : ইনডিপেনডেন্ট

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "সঙ্গী-সঙ্গিনী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভুল কোনটি?"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*