সাকিবদের ঢাকাকে হারাল সাব্বির-মেহেদীদের রাজশাহী

নিউজ ডেস্ক : সাব্বির রহমান মাথাটা ঠাণ্ডা রাখলেন। শেষটায় সামিট প্যাটেল বেশ মারলেন। লক্ষ্যটাকে তখন আর দূরে লাগে না। কাছে চলে আসে। ১৩৯ রানই তো। ঢাকা ডাইনামাইটসের দেওয়া সেই টার্গেট রাজশাহী কিংস জয় করেছে ১৮.১ ওভারে। ১১ বল হাতে রেখে। ৪ উইকেট হারিয়ে। তার মানে এবারের বিপিএলে রাজশাহীর প্রথম জয়টা ৬ উইকেটে। সাকিব আল হাসানের শক্তিশালী ঢাকাকে হারিয়ে। সাব্বির ৩৯ বলে দারুণ দামী ৩১ রানের ইনিংস খেলেছেন। অল রাউন্ড নৈপুণ্য দেখানো প্যাটেল ২৫ বলে ৬ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ৪৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে জয় নিয়ে ফিরেছেন। তরুণ তারকা মোসাদ্দেক হোসেন খেলেছিলেন ৪৬ বলে ১ ছক্কা ও ৬ বাউন্ডারিতে হার না মানা ৫৯ রানের ইনিংস। এই ইনিংসের ওপর দাঁড়িয়েই মিরপুরে শুক্রবার টসে হেরে ঢাকা করে ৫ উইকেটে ১৩৮ রান। সামিট প্যাটেল ও মেহেদী হাসান মিরাজ মোক্ষম সময়ে ৩টি উইকেট নিয়ে গতি কমিয়েছিলেন ঢাকার। প্যাটেল ম্যাচের সেরা। তো এই উইকেটে অবশ্য এই রান তাড়া করাও কঠিন হতে পারতো। ঢাকার বোলিং লাইনও দারুণ। কিন্তু সাব্বির দারুণ দায়িত্বে শেষ পর্যন্ত দলকে নিয়ে গেছেন। উইকেটে এসেছিলেন দলের ২৭ রানে মুমিনুল হক (৯) বিদায় নিলে। রনি তালুকদার (১৪) চমৎকার শুরু করেও দলের ওই রানেই সাকিবের শিকার। চেপে ধরতে শুরু করেছিল ঢাকা। সাব্বির ঢাকার মুঠি শক্ত হতে দেননি। প্রথমে উমর আকমলের সাথে ৩৮ রানের জুটি গড়ে ইনিংসটাকে সোজা রেখেছেন। এরপর চতুর্থ উইকেটে প্যাটেলের সাথে তার ৫০ বলে ৭৩ রানের জুটিটা ম্যাচ জেতানো। সাব্বির ৩টি বাউন্ডারি মেরেছেন। তার আউটের সময় স্কোর সমান। রাজশাহীর আর হারানোর কিছু থাকেনি। আগের ম্যাচে ১৩৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করে রাজশাহী হেরেছিল ৩ রানে। এবার তার পুনরাবৃত্তি হয়নি। আগে ব্যাটিংয়ে নামা ঢাকার রাশ টেনে ধরায় বড় এক ভূমিকা ছিল মেহেদী হাসান মিরাজের। হালের এই সেনসেশনাল অফ স্পিনারই ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারে আঘাত হানেন। কিংবদন্তি কুমার সাঙ্গাকারা (২) তার বলের লাইন বুঝতে না পেরে বোল্ড। এরপর ৩০ রান যোগ করলেন আগের ম্যাচে অপরাজিত ৭৫ রান করা ওপেনার মেহেদী মারুফ ও মাহেলা জয়াবর্ধনে। কিন্তু তারপরও ৪ বলের মধ্যে ঢাকার ৩ উইকেট তুলে নেয় রাজশাহী।ডাবল উইকেট মেডেনের ওভার ছিল বৃটিশ স্পিনার প্যাটেলের। দুই সেট ব্যাটসম্যান জয়াবর্ধনে (১) ও মারুফ (২২ বলে ২৫) প্যাটেলের শিকার। পরের বলটি ছিল মেহেদীর দ্বিতীয় ওভারের প্রথম। ঢাকা অধিনায়ক সাকিব আল হাসানেরও প্রথম। কিন্তু টেস্টের নতুন বোলিং পার্টনারের বলে স্টাম্পিংয়ের শিকার হয়ে শূণ্য রানে ফেরেন সাকিব। ঠিক ৪৩ রানের সময়ই ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে ঢাকা। কিন্তু তরুণ মোসাদ্দেক হোসেন ও রবি বোপারা ধস থামালেন। ৫২ বলে ৫৪ রানের জুটি গড়ে তারা দলকে নিলেন ৯৭ রান পর্যন্ত। আগের ম্যাচে ৫ উইকেট নেওয়া আবুল হাসান আক্রমণে ফিরে জুটি ভাঙলেন। ফেরালেন বোপারাকে। কিন্তু মোসাদ্দেক চাপের মাঝে ৪১ বলে তার প্রথম ফিফটি তুলে নেন। ১৯তম ওভারটি মোহাম্মদ সামির ছিল। ডোয়াইন ব্রাভো ও মোসাদ্দেকের ক্যাচ ড্রপ হয় ৩ বার! রান আসে ১২। মোসাদ্দেকের ৩৯ রানই এসেছে শেষ ৪ ওভারে। বোঝা যায় শেষ দিকে তিনি চালিয়ে না খেললে ঢাকার সংগ্রহটা হয়তো আরো কম হতো। ব্রাভোর সাথে ২৫ বলে অবিচ্ছিন্ন ৪১ রানের জুটি মোসাদ্দেকের। ব্রাভো অপরাজিত থাকেন ১৩ রানে। কিন্তু জেতার জন্য রানটা আসলেই কম হয়ে গিয়েছিল।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "সাকিবদের ঢাকাকে হারাল সাব্বির-মেহেদীদের রাজশাহী"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*