গাড়ি থেকে নামিয়ে মা-মেয়েকে পরিবারের সামনেই গণধর্ষণ

নিউজ ডেস্ক : পুলিশ চৌকির একশো মিটার দূরত্বে গাড়ি থেকে নামিয়ে মাঠে টেনে নিয়ে গিয়ে মা-মেয়েকে ধর্ষণ করল পাঁচ দুষ্কৃতী। গত শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহরে।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই মহিলা নিজেদের গাড়িতে করে পরিবারের সঙ্গে সাহারনপুরে যাচ্ছিলেন। বুলন্দশহরে ঢুকতেই তাঁদের গাড়িটি অন্ধকারের মধ্যে কোনও কিছুর সঙ্গে ধাক্কা খায়। গাড়িটি থামতেই পাঁচ দুষ্কৃতী এসে ঘিরে ধরে। প্রথমে ওই পরিবারের টাকা, গয়না ছিনতাই করে তারা। অভিযোগ, তার পর পরিবারের সবাইকে হাইওয়ের পাশেই একটি মাঠে টেনে নিয়ে যায়। পুরুষদের হাত-পা বাঁধে দুষ্কৃতীরা।  তার পর তাঁদের চেখের সামনেই ওই মহিলা ও তাঁর ১৪ বছরের মেয়েকে গণধর্ষণ করে সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরিবারের সদস্যদের মধ্যে এক জন হাত-পায়ের বাঁধন কোনও রকমে খুলে পুলিশের কাছে যান অভিযোগ জানাতে। ঘটনার পরই অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশিতে নামে পুলিশ।

প্রশ্ন উঠছে, ১০০ মিটারের মধ্যে পুলিশ চৌকি থাকা সত্ত্বেও এত বড় ঘটনার কোনও আঁচ পেল না? শনিবার সকালে এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই পুলিশ চৌকিতে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। সাসপেন্ড করা হয় ডিউটি অফিসার ললিত কুমারকে। ডিআইজি লক্ষ্মী সিংহ জানান, প্রাথমিক ভাবে মনে হচ্ছে রাজস্থানের আদিবাসীদের বিশেষ একটি দল এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে এই ঘটনার সঙ্গে আলিগড়ের দুষ্কৃতী দলের জড়িয়ে থাকার বিষয়টিকেও উড়িয়ে দেননি ডিআইজি।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "গাড়ি থেকে নামিয়ে মা-মেয়েকে পরিবারের সামনেই গণধর্ষণ"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*