‘তথ্য-প্রমাণ পেলে সম্রাটের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা’

‘তথ্য-প্রমাণ পেলে সম্রাটের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা’

নিউজ ডেস্ক ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছেন, তথ্য-প্রমাণ পেলে ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে। বলেন, যাদের বিরুদ্ধেই সাক্ষী-প্রমাণ পাওয়া যাবে, তাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। তা সে যেকোনও ব্যক্তি বা সংস্থার লোকই হোক না কেন।

আজ রাজধানীর নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির ২০১৯ ব্যাচের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্টমন্ত্রী বলেন, আমরা কাউকে ছাড়ছি না। যার বিরুদ্ধে অভিযোগ পাবো তাকেই আইনের আওতায় নিয়ে আসবো। জি কে শামীম কিভাবে এতগুলো টেন্ডার পেয়েছে সেটি অন্য বিষয়। তার বিরুদ্ধে বিস্তারিত অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যাদের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রমাণ হাতে আসছে তাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। আমরা যেভাবে এগিয়ে চলেছি, সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল (এসডিজি) বা টেকসই উন্নয়নের জন্য দীর্ঘমেয়াদী শান্তির দরকার। যেখানে দুর্নীতি, যেখানে নিয়ম ভঙ্গকারী আছে তাদেরকে আমরা বিচারের মুখোমুখি করবো। কেউ শাস্তি থেকে বাদ যাবে না।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃতে ইতিমধ্যে অনেক উন্নয়ন হয়েছে। আমরা পরবর্তী প্রজন্মের কাছে একটি সুন্দর বাংলাদেশ রেখে যেতে চায়। যেখানে ক্ষুধা, দারিদ্র, নিপীড়ন ও অত্যাচার থাকবে না। সেখানে আমাদের ছেলে-মেয়েরা মাথা উঁচু করে চলবে, তারা বলবে আমরা বাংলাদেশের মানুষ। আজকের বাংলাদেশের অবস্থান আর ১০ বছর আগের বাংলাদেশের অবস্থানের অনেক পার্থক্য রয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে ঘোষণা দিয়েছিলেন, তিনি বদলে দেবেন বাংলাদেশকে। আমরা সেদিন বলেছিলাম ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ করব। তখন অনেকেই অনেক কথা বলেছিলেন কিন্তু ডিজিটাল বাংলাদেশ আজ স্বপ্ন নয়, বাস্তব।

এছাড়া সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারে সচেতনতার বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদের উত্থানে দানা বেঁধেছিল সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। মাদকের বিরুদ্ধে আমরা জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি। এই মাদকের বেচাকেনা কিংবা বিস্তার লাভ করার পেছনেও সোস্যাল মিডিয়া রয়েছে। প্রযুক্তি আমাদের ব্যবহার করতেই হবে কিন্তু এর খারাপ দিকটা ভেবেচিন্তে সবাই কাজ করবে এটাই আহ্বান। জঙ্গিবাদ দমনে আমরা হিমশিম খাচ্ছিলাম। পরে সবার সহযোগিতায় জঙ্গি দমন করতে সক্ষম হয়েছি। নতুন প্রযুক্তি সাইবার ক্রাইম করে অনেকেই পার পাওয়ার চেষ্টা করছে কিন্তু আমাদের নতুন সাইবার ক্রাইম ইউনিট তাদেরকে মোকাবেলা করছে।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "‘তথ্য-প্রমাণ পেলে সম্রাটের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা’"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*