পালাতে গিয়ে এক ব্যাক্তির মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক : গাজীপুরে কালীগঞ্জের বিল থেকে শনিবার এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের ধাওয়া খেয়ে জুয়ার আসর থেকে পালাতে গিয়ে পানিতে পড়ে ওই ব্যাক্তি নিহত হয়েছে বলে এলাকাবাসি জানিয়েছে। তবে পুলিশ তা অস্বীকার করেছে। নিহতের নাম সোলাইমান মোল্লা ওরফে সোলমান (৫৫)। সে কালীগঞ্জ উপজেলার বক্তারপুর ইউনিয়নের গোয়ালিয়াবাড়ী রয়েন গ্রামের মৃত হাসিম উদ্দিন হাসুর ছেলে। স্থানীয়রা জানায়, কালীগঞ্জ উপজেলার বক্তারপুর গ্রামের ফালাইনা মিয়ার টেকে শুক্রবার বিকেলে জুয়ার আসর চলছিল। কালীগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এম এ হকের নেতৃত্বে সাদা পোশাকে পুলিশ সেখানে হানা দেয়। পুলিশ জুয়ার আসর থেকে ৩ জনকে আটক করলেও পুলিশের ভয়ে পালাতে গিয়ে অপর দুইজন পাশর্^বর্তী নাওয়ানের বিলের পানিতে ঝাপ দেয়। এ ঘটনার পর একজন সাঁতরে পাড়ে উঠে এলেও অপর ব্যাক্তি সোলাইমান নিখোঁজ থাকে। রাতভর বিভিন্নস্থানে খোঁজ করেও স্বজনরা তার সন্ধান পায়নি। পরদিন শনিবার স্থানীয় লোকজন মাছ ধরতে গিয়ে ওই বিলের পানিতে সোলাইমানের লাশ ভাসতে দেখে। খবর পেয়ে দুপুরে পুলিশ সোলাইমানের লাশ উদ্ধার করে। এবিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য স্থানীয়দের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার ওসি আলম চাঁদ জানান, ওই টেকে মাদক কেনা বেচার গোপন সংবাদ পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এসময় মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় কেউ মারা যায়নি। পালাতে গিয়ে কেউ পানিতে ঝাপ দিয়েছে কি-না তা জানা নেই। তবে নিহতের স্ত্রী পুলিশকে জানায়, শুক্রবার বিলে মাছ ধরতে গিয়ে সোলাইমান নিখোঁজ হয়। পরদিন বিল থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। সে সাঁতার জানতো না। ধারনা করা হচ্ছে, মাছ ধরার সময় পানিতে পড়ে সে মারা গেছে। অপরদিকে কালীগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এম এ হক ওই টেকে পুলিশের অভিযানের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "পালাতে গিয়ে এক ব্যাক্তির মৃত্যু"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*