সামরিক মর্যাদায় সমাহিত বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম

সামরিক মর্যাদায় সমাহিত বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম

রাশেদ, লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : বীরমুক্তিযোদ্ধা ও অবসরপ্রাপ্ত কর্পোরাল শেখ সিরাজুল ইসলামকে বুধবার (২৯ জুন) সকাল ১০টায় প্রথমে পূর্ণ সামরিক ও পরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় লোহাগড়া কেন্দ্রীয় (মোল্যারমাঠ) পৌর কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। যশোর ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের সার্জেন্ট মো: আবুল বাশারের নেতৃত্বে একদল চৌকস সেনাদল এবং লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: আলী আজগর ও ডেপুটি কমান্ডার মো: আ: হামিদ এর উপস্থিতিতে লোহাগড়া থানার একদল চৌকস পুলিশ সদস্যরা পৃথক ভাবে সামরিক ও রাষ্ট্রিয় মর্যাদায় গার্ড অফ অনার প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত মুসল্লি ও আশপাশের লোকজন সামরিক রীতি ও পুলিশের কুচকাওয়াজের প্রতি সম্মান জানান।
দাফন শেষে ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের সেনা সদস্যরা কুচকাওয়াজের মাধ্যমে ফুল দিয়ে শেষবারের মত শ্রদ্ধা ও সশস্ত্র সালাম এবং ৯ রাউন্ড ট্রেচার ফায়ারের মাধ্যমে তপধ্বনি দেয়। পরে সেনা সদস্যরা নিহতের বাড়িতে গিয়ে শোকসন্তপ্ত পরিবারকে সমবেদনা জানিয়ে কিছু নগদ অর্থ প্রদান করেন।
গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তার মৃত্যু হয়। তিনি দীর্ঘদিন যাবত ভাসকুলার ও কিডনিজনিত রোগে আক্রান্ত ছিলেন।

সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুন্সি আলাউদ্দিন, সাধারন সম্পাদক ও পৌর মেয়র সৈয়দ মসিয়ুর রহমান, নড়াইল জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ডার এম এম গোলাম কবির, লোহাগড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের ডেপুটি কমান্ডার মো: আ: হামিদ, সাবেক ডেপুটি কমান্ডার মো: রেজাউল করিম রেজা, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হান্নান, বাবু মিয়া, খানজাহান খান, সেকেন্দার আলী, জালাল মিয়া, আবুল কালাম, কাজী সানোয়ার হোসেন, লোহাগড়া পৌর কমান্ড (উত্তর) আসাদুজ্জামান, পৌর কমান্ড (দক্ষিন) এসএ মাসুম, লক্ষীপাশা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জহির ফকির ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শোক প্রকাশ করেন।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, সিরাজুল ইসলাম লোহাগড়া উপজেলার কামঠানা গ্রামের মৃত আব্দুস সামাদ শেখের ছেলে । তিনি মুক্তিযুদ্ধে ৮ নম্বর সেক্টরের অধিনে যশোর-ফরিদপুর অঞ্চলে যুদ্ধ করেন । ১৯৭৩ সালের ২২ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগদান পরবর্তী রক্ষিবাহীনিতে নিষ্ঠার সহিত অর্পিত দায়ীত্ব পালন করেন । ১৮ বছর ৪ মাস ৬ দিন দীর্ঘ চাকরিজীবন শেষে ১৯৯২ সালের ১ জানুয়ারী কর্পোরাল পদে তিনি স্বাভাবিক অবসরে যান ।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "সামরিক মর্যাদায় সমাহিত বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*