ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি টুকুর শ্যালকের বিরুদ্ধে মামলা

ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি টুকুর শ্যালকের বিরুদ্ধে মামলা

নিউজ ডেস্ক ॥ নড়াইলে অসহায় একজন মহিলাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা করেছেন ভূক্তভোগী । মামলা সূত্রে জানা যায়, নড়াইল সদর উপজেলার পংকবিলা গ্রামের মহিলা বেগম (ছন্মনাম) তার স্বামীর চিকিৎসার জন্য সাহায্য চান একই গ্রামের সানাউল্লাহর ছেলে কামরুজ্জামান খান তুহিনের কাছে । তুহিন ওই মহিলাকে তার মাধ্যমে “মাশরাফি এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন” বরাবর একটি আবেদন করার পরামর্শ দেয় । তার কথামতে আবেদনটি নিয়ে মহিলা বেগম তুহিনের প্রতিষ্ঠিত রূপগঞ্জ মার্কেন্টাইল এজেন্ট ব্যাংকিং অফিসে পৌছে দেয় । এ সময় বেগমকে একা পেয়ে বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ প্রস্তাব দেন তুহিন । মহিলা বেগম তার কু-প্রস্তাবে রাজি না হলে মুখ ও হাত চেপে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে । এক পর্যায়ে মহিলা বেগম লম্পট তুহিনকে ধাক্কা দিয়ে রুম থেকে বেরিয়ে আসেন । পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে এলাকায় তোলপাড়ের সৃষ্টি হয় । তুহিনের গ্রামের বাড়ি আউড়িয়া ইউনিয়নের দুইজন জনপ্রতিনিধির সাথেএই প্রতিবেদকের কথা হয়। তারা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও লম্পট তুহিনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানায়। এ ঘটনায় ভূক্তভোগী গত ২ জানুয়ারী নড়াইল সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন । মামলা নং ০৩। মামলা দায়েরের পর আসামী পক্ষের লোকজন তাকে বিভিন্নভাবে ভয়-ভীতি ও হুমকি ধামকি দিয়ে আসছে। ভূক্তভোগী আরও জানায়, লম্পট তুহিন নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি এনামুল কবীর টুকুর শ্যালক হওয়ার সুবাদে টুকুসহ তার সমর্থিত লোকজন ও স্থানীয় সাংবাদিকরা মামলা ও ঘটনাটি ভিন্নভাবে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে।
এ ব্যাপারে নড়াইল সদন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মাদ শওকত কবির মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামী পলাতক রয়েছে। তাকে আটকের জোর চেষ্টা চলছে ।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি টুকুর শ্যালকের বিরুদ্ধে মামলা"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*