বিসর্জনে পুলিশকে ডুবিয়ে মারার চেষ্টা

নিউজ ডেস্ক :  ঝামেলা বেধেছিল বিসর্জনের সময়। ঠাণের কল্যাণ টাউনশিপের সাব ইনস্পেক্টর গণেশ পুজোর বিসর্জনের তদারকিতে ব্যস্ত ছিলেন। ভিড় সামলাচ্ছিলেন ঘাটের কাছে। সেটা পছন্দ হয়নি চার যুবকের। তাই সাব ইনস্পেক্টর নিতিন দোন্দু দাগালেকে ঠেলে তারা ঠেলে ফেলে দেয় লেকের জলে। পড়ে যাওয়ার পরে দাগালে যাতে উঠতে না পারেন, তার জন্য এক জন আবার চেষ্টা করে তাঁর মাথা জোর করে জলে ডুবিয়ে দিতে।
শেষমেশ অবশ্য বরাতজোরে রক্ষা পেয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার সন্ধ্যার এই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। ওই চার যুবকের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। এক সপ্তাহ আগেই মুম্বইয়ে এক ট্র্যাফিক পুলিশকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছিল দু’জনের বিরুদ্ধে। তার মধ্যে এক জন আবার নাবালক। খারের কাছে একটি পেট্রোল পাম্পে গাড়ির কাগজ চাওয়ার কাঠের তক্তা দিয়ে তাঁর মাথায় মারা হয়। কুরলায় আবার হেলমেটহীন এক বাইকআরোহীকে আর এক ট্র্যাফিক পুলিশ আটকাতে গেলে তাঁর উপরেই চড়াও হয় আরোহী। বার বার এ ভাবে পুলিশের উপরে নিগ্রহের ঘটনায় উদ্বিগ্ন প্রশাসন। শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে এ ব্যাপারে আজ দেখা করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডণবীসের সঙ্গে। পুলিশের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে দ্রুত পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করেছেন তিনি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার ওই চার যুবক কিছুতেই পুলিশের ঠিক করে দেওয়া লাইনে দাঁড়াচ্ছিল না। কল্যাণের কোসেলওয়াড়ি থানার সাব ইনস্পেক্টর দাগালের সঙ্গে তর্কাতর্কি শুরু হয়ে যায় সেই নিয়ে। এলাকার তিসগাঁও তালাওয়ে তখন বিসর্জন চলছে পুরোদমে। এর মধ্যে হঠাৎ এক সময় দাগালেকে ঠেলা মেরে ফেলে দেয় তারা। তার পরেও দাগালে যখন জল ঠেলে উঠে আসার চেষ্টা করছিলেন, এক যুবক ফের তাঁকে ডুবিয়ে মারার চেষ্টা করে। শেষ পর্যন্ত অবশ্য সাঁতরে লেক থেকে উঠে আসেন ওই
সাব ইনস্পেক্টর।
ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, ভিড়ের মধ্যে এক জনও দাগালেকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেননি। কোসেলওয়াড়ি থানার পুলিশ ওই চার যুবকের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা-সহ বিভিন্ন ধারায় মামলা রুজু করেছে। চার যুবককে খোঁজে অভিযান চালাচ্ছে তারা।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "বিসর্জনে পুলিশকে ডুবিয়ে মারার চেষ্টা"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*