যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেমের রিভিউ সোমবারের তালিকায়

নিজস্ব প্রতিবেদক : মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত রায় পুনর্বিবেচনায় যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেম আলীর আবেদন আপিল বিভাগের সোমবারের কার্যতালিকায় উঠেছে।
রোববার বিকালে সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা যায়, ‘রায়ের বিরুদ্ধে’ হিসেবে আপিল বিভাগের  সোমবারের দৈনন্দিন কার্যতালিকায় প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ রিভিউ আবেদনটি ৬৩ নম্বর ক্রমিকে রয়েছে, সঙ্গে রয়েছে একটি মুলতবিরও আবেদনও।
বেঞ্চের অন্য তিন সদস্য হলেন- বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার।
মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে আপিলের পূর্ণাঙ্গ রায় ৬ জুন প্রকাশের পর তা পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে ১৯ জুন আবেদন করেন মীর কাসেম। রিভিউ আবেদন শুনানির দিন ধার্যের জন্য আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।
এ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২১ জুন চেম্বার বিচারপতি বিষয়টি ২৫ জুলাই নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠায়। এর ধারাবাহিকতায় সোমবারের দৈনন্দিন কার্যতালিকায় মামলাটি এল।
মুলতবি আবেদনের বিষয়ে মীর কাসেমের ছেলে মীর আহমেদ বিন কাসেম বলেন, “প্রস্তুতির জন্য দুই মাস সময়ের আবেদন করা হয়েছে। আপিল বিভাগের রায়ে এসেছে, এই মামলায় অভিযোগ গঠনের আদেশ ত্রুটিপূর্ণ।”
এ বিষয়টি আরও পর্যালোচনার জন্য তাদের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের সময় প্রয়োজন বলে মুলতবির আবেদনটি করা হয়েছে বলে জানান মীর কাসেমের ছেলে।
জামায়াতের অর্থ জোগানদাতা হিসেবে পরিচিত মীর কাসেমের এটাই আইনি লড়াইয়ের শেষ সুযোগ। এই আবেদন নাকচ হলে ফাঁসি এড়াতে তিনি শুধু রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাইতে পারবেন।
তিনি তা না চাইলে কিংবা আবেদন করে প্রত্যাখ্যাত হলে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে আর কোনো বাধা থাকবে না। ৬৩ বছর বয়সী মীর কাসেম এখন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন। ২০১৪ সালের ২ নভেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রায়ে মীর কাসেমকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। এরপর গত ৮ মার্চ আপিলের রায়ে ওই সাজাই বহাল থাকে। আপিলের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর ১৫ দিনের মধ্যে ১৯ জুন তা পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন করেন মীর কাসেম। দণ্ড মওকুফ চেয়ে ৮৬ পৃষ্ঠার রিভিউ আবেদনে ১৪টি যুক্তি তুলে ধরেছেন মীর কাসেম। রিভিউ দায়েরর পর তার প্রধান আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, এতে ‘ন্যায়বিচার’ পাবেন বলে তারা ‘প্রত্যাশা’ করছেন।
অন্যদিকে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম অতীত অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে বলেছেন, ফৌজদারি মামলায় পুনর্বিবেচনায় রায় বদলের খুবই ‘খুবই সীমিত’।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেমের রিভিউ সোমবারের তালিকায়"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*