লোহাগড়ায় অধ্যক্ষসহ শিক্ষক লাঞ্চিত শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন,বিক্ষোভ মিছিল

লোহাগড়ায় অধ্যক্ষসহ শিক্ষক লাঞ্চিত শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন,বিক্ষোভ মিছিল

নিউজ ডেস্ক॥ নড়াইলের লোহাগড়ায় ছাত্রকে শালীনভাবে চুল ছেটে ক্লাসে আসতে বলায় অভিভাবকের হাতে অধ্যক্ষসহ এক শিক্ষক লাঞ্চিত হয়েছে। এ ঘটনায় শিক্ষকরা ক্লাস বর্জন করে এবং সাধারন শিক্ষার্থীরাও শিক্ষক লাঞ্চিত হওয়ার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে। মঙ্গলবার (১৬জুলাই) দুপুরে উপজেলার ইতনা স্কুল এন্ড কলেজে এ ঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসী ও শিক্ষক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ইতনা স্কুল এন্ড কলেজের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্র রোজিম শিকদার অশালিনভাবে চুল ছেটে ক্লাসে আসে। শিক্ষকরা তাকে গত কয়েকদিন ধরে শালীনভাবে চুল ছেটে ক্লাসে আসতে অনুরোধ করে। কিন্তু রোমিজ শিক্ষকদের কথা কর্নপাত না করে একইভাবে ক্লাসে আসে। মঙ্গলবার শ্রেনী শিক্ষক পিকুল শিকদার ওই ছাত্রকে শিক্ষক কাউন্সিলে নিয়ে যায়। তখন কলেজের সহকারী অধ্যাপক মদন মোহন ভদ্র তাকে ৩০ টাকা দিয়ে সেলুনে যেয়ে চুল ছেটে আসতে বলেন। রোমিজ বাইরে গিয়ে দুলাভাই ও সাময়িক বরখাস্ত পুলিশ সদস্য ইতনা গ্রামের ওমর সরদারের ছেলে সুমন সরদার এবং মান্নু সরদারের ছেলে রাকাতুল ইসলাম ওই প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করে শ্রেনী শিক্ষক পিকুল শিকদারকে লাঞ্চিত করে।এ সময় অধ্যক্ষ বিশ্বনাথ চক্রবর্তী কথা বলতে গেলে তাকেও লাঞ্চিত করে। এ ঘটনায় তাৎক্ষনিকভাবে ইতনা স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকরা ক্লাস বর্জন করে সৃষ্ট ঘটনার বিচার দাবি করেন। সাধারন শিক্ষার্থীরা শিক্ষক লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে ও বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে।
এ ব্যাপারে ইতনা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ বিশ্বনাথ চক্রবর্তী বলেন, সুষ্ঠু বিচারের জন্য বিষয়টি জিবি সদস্যদের জানানো হয়েছে এবং ওই ছাত্রকে টিসি দেওয়ার সিন্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে। ঢাকায় অবস্থানরত ওই প্রতিষ্ঠানের সভাপতি বাসুদেব ব্যানর্জি জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তবে পুলিশ সদস্য সুমন সরদারের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ তিনি অস্বীকার করেন।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "লোহাগড়ায় অধ্যক্ষসহ শিক্ষক লাঞ্চিত শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন,বিক্ষোভ মিছিল"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*