সতীর্থের শাস্তির বিরুদ্ধে আবেদন করবেন বোল্ট

নিউজ ডেস্ক : সতীর্থ নেস্তা কার্টার ডোপ পরীক্ষায় ধরা পড়ায় অলিম্পিকের ইতিহাসে প্রথম ‘ট্রিপল ট্রিপল’ নজিরের গৌরব ভেঙে পড়েছে উসাইন বোল্টের। তবে তিনি কার্টারের ওপর ক্ষুদ্ধ নন। উল্টো কার্টারের শাস্তির বিরুদ্ধে আবেদন করতে যদি অর্থের প্রয়োজন হয় তবে তিনি দিতে রাজি।

সম্প্রতি ডোপ টেস্টে বেইজিং অলিম্পিকের ১০০ মিটার রিলেতে বোল্টের সতীর্থ কার্টার পজিটিভ প্রমাণীত হওয়ায় স্বর্ণ ফিরিয়ে দিতে হয়েছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটিকে।

কার্টার যদি আইওসি’র শাস্তির বিরুদ্ধে কোর্ট অব আর্বিট্রেশনে আবেদন করেন তা হলে খরচ হতে পারে প্রায় ১৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার! জামাইকার মিডিয়ার এমনটাই দাবি। কার্টারের আইনজীবীরা এই বিপুল অর্থ খরচ করার আগে তাই তড়িঘড়ি আবেদনের পথে না হেটে আবেদন করলে কতটা লাভ হতে পারে সেটা খতিয়ে দেখছেন।

এ ব্যাপারে বোল্ট বলছেন, ‘নেস্তার সঙ্গে এ নিয়ে কথা হয়নি। তবে এ জন্য আমি কারও সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ করবো না। নেস্তা এখনও আমার বন্ধুই। আমার ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলতে হবে। যদি প্রয়োজন হয় আমি কার্টারকে সাহায্য করতে রাজি।’

বোল্ট, কার্টার, আসাফা পাওয়েল আর মাইকেল ফ্রেটার বেইজিংয়ে ১০০ মিটার রিলে দৌড়েছিলেন। বুধবার আইওসি তাদের পদক বাতিল করে দেয় কার্টারের নমুনায় নিষিদ্ধ মিথাইলহেক্সানেমাইন থাকায়। শুক্রবার সবাই তাদের পদক ফিরিয়ে দিয়েছেন জামাইকান অলিম্পিক কমিটিকে।

তবে অলিম্পিকের ইতিহাসে তার প্রথম তিন বার তিনটি ইভেন্টে সোনা জেতার রেকর্ড ভেঙে গেলেও বোল্ট বলছেন, ‘গোটা ক্যারিয়ার জুড়ে আমি যা যা পেয়েছি সেটা এই ঘটনায় পাল্টে যাবে না। এমন কৃতিত্ব দেখিয়েছি যেটা আগে কেউ কখনও পারেনি

 

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "সতীর্থের শাস্তির বিরুদ্ধে আবেদন করবেন বোল্ট"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*