পর্যটন কেন্দ্রের মুর্তি ভাংচুর

পর্যটন কেন্দ্রের মুর্তি ভাংচুর

নিউজ ডেস্ক ॥  নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার উলা গ্রামে চৌধুরী মিনি পার্কের প্রবেশদ্বারের দুটি সিংহ মুর্তি ভাংচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পার্কের মালিক বাদি হয়ে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে মঙ্গলবার রাতে আলম শেখ নামে একজনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।
পুলিশ ও দায়েরকৃত মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার লক্ষীপাশা ইউনিয়নের উলা গ্রামের মিজানুর রহমান খোকন চৌধুরীর ছেলে সোহাগ চৌধুরী গত ২০২০ সালে তার গ্রামের নিজস্ব বাড়িতে অপরুপ কারুকার্য খচিত ‘চৌধুরী বাংলো’ কাম মিনি পার্ক স্থাপন করেন। নান্দনিক পার্কটি দেখার জন্য নড়াইল জেলাসহ আশপাশের জেলা থেকে ভ্রমন পিপাসু মানুষেরা এখানে আসতে শুরু করে। কিন্তু ওই এলাকার একটি কুচক্রিমহল পার্কটি নির্মাণের শুরু থেকেই বিভিন্ন ভাবে ষড়যন্ত্রসহ নানা অন্যায়-অত্যাচার করে আসছিল। এর জের ধরে গত ৬ জানুয়ারী গভীর রাতে কে বা কারা পার্কের প্রবেশদ্বারের দুটি মূল্যবান সিংহ মুর্তি ভাংচুর করে। এঘটনায় পার্কের মালিক খোকন চৌধুরী বাদি হয়ে গত ১১ জানুয়ারী অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের আসামী করে লোহাগড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ০৩, তাং ১১-০১-২০২২ ইং।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই মো: রাজিব হোসেন গত মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে আলম শেখ (২৮) নামে একজনকে আটক করে বুধবার(১৯ জানুয়ারী) সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করেছেন। আটক আলম শেখ উলা গ্রামের মৃত লোকমান শেখের ছেলে। এ ব্যাপারে এসআই রাজিব হোসেন বলেন, পার্কের প্রবেশদ্বারের সিংহ মুর্তি ভাংচুরের সাথে জড়িত সন্দেহে আলম শেখকে আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে এবং এঘটনার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "পর্যটন কেন্দ্রের মুর্তি ভাংচুর"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*