মন্ত্রিসভার পরবর্তী বৈঠকে উঠছে চূড়ান্ত হজ প্যাকেজ

নিউজ ডেস্ক : মন্ত্রিপরিষদের অনুমোদন না পাওয়ায় চূড়ান্ত হজ প্যাকেজের পরবর্তী কার্যক্রম আটকে আছে। আগামী ৩০ জানুয়ারি নিয়মিত বৈঠকে এ প্যাকেজ অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হতে পারে।
পাশাপাশি জাতীয় হজ ও ‘ওমরাহ নীতিমালা-২০১৬’ও উপস্থাপন করা হতে পারে বলে ধর্ম মন্ত্রণালয় ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।
এর আগে ১৬ জানুয়ারির মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে বিষয়টি উপস্থান করার কথা থাকলেও তা হয়নি। ওই সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) বৈঠকে যোগ দিতে সুজাইজারল্যান্ডে ডাভোসে গিয়েছিলেন।
সুজাইজারল্যান্ড থেকে প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন শনিবার। এর পরের সপ্তাহের ২৩ জানুয়ারিও (সোমবার) মন্ত্রিপরিষদের নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়নি।
এদিন প্রধানমন্ত্রী ‘পুলিশ সপ্তাহ- ২০১৭’-এর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাজধানীর রাজারবাগে পুলিশ লাইনে ছিলেন।
প্রসঙ্গত, আগামী ১ সেপ্টেম্বর চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ১৪৩৮ হিজরি সনের ৯ জিলহজ তারিখে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে মোট ১ লাখ ২৭ হাজার হজযাত্রী সৌদি আরবে যেতে পারবেন। এর মধ্যে ১০ হাজার সরকারি ব্যবস্থাপনায়, বাকিরা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন। গত বছর নিবন্ধন করেও হজে যেতে পারেননি এমন প্রাক-নিবন্ধিত প্রায় ৪০ হাজার হাজী এ বছর যাওয়ার অগ্রাধিকার পাবেন। আগামী ২৮ জানুয়ারি সৌদি আরবের জেদ্দায় বাংলাদেশ-সৌদি দ্বি-পাক্ষিক হজ চুক্তি হবে। ওই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ধর্মমন্ত্রীসহ শীর্ষ কর্মকর্তাদের অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে। এবার হজ চুক্তিতে বাংলাদেশের কোটা বাড়তে পারে।
ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বর্তমানে সৌদি সরকার হজ ব্যবস্থাপনায় ই-হজ ম্যানেজমেন্ট কার্যকর করেছে। শৃঙ্খলা ফেরাতে সরকারের পক্ষ থেকে জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতিমালা সংশোধনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে গত ২৪ নভেম্বর ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শহিদুজ্জামানকে প্রধান করে ৫ সদস্যের কমিটি তাদের প্রণীত প্রস্তাবিত হজ নীতিমালায় বলেছে, প্রতি বছর ১ জানুয়ারি থেকে প্রাক হজ নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হবে। সেই অনুযায়ী রেজস্ট্রেশনের কাজও শুরু হয়েছে।
হজযাত্রী হিসেবে নিবন্ধিত হতে হলে প্রার্থীকে অবশ্যই মেশিন রিডেবল পাসপোর্টধারী (এমআরপি) হতে হবে। পাসপোর্টের মেয়াদ হজ পালনের মাস বাদ দিয়ে কমপক্ষে ৬ মাস হতে হবে। কোনও বাংলাদেশি বিদেশি পাসপোর্ট নিয়ে হজে যেতে পারবেন না। যেসব হজযাত্রীর বয়স ১৮ বছরের বেশি তাদের নিবন্ধনের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক। যাদের বয়স ১৮ বছরের কম তাদের অভিভাবকের সঙ্গে জন্মনিবন্ধন সনদের কপিসহ আবেদন করতে হবে। এসব তথ্য সরকার সংশ্লিষ্ট সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান তদন্ত করবে।
হজে যেতে ইচ্ছুক ব্যক্তিরা জেলা প্রশাসক, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, পৌর ডিজিটাল সেন্টার, সিটি করপোরেশন ডিজিটাল সেন্টার, ঢাকাস্থ হজ অফিস, ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও হজ এজেন্সির কার্যালয় থেকে প্রাক-নিবন্ধন করতে পারবেন। সরকার নির্ধারিত ফি ও অগ্রিম জামানত নির্ধারিত ব্যাংকে জমা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জমাদানকারীকে প্রাক-নিবন্ধনের ক্রমিক নম্বর দেওয়া হবে।
সরকারি ব্যবস্থাপনায় ‘এ’ প্যাকেজের মূল্য প্রস্তাব করা হয়েছে জনপ্রতি ৩ লাখ ৭৩ হাজার ৬৭২ টাকা। ‘বি’ প্যাকেজের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে জনপ্রতি ৩ লাখ ৮ হাজার ৬২৮ টাকা। প্রত্যেক হজযাত্রীকে কোরবানি খরচ বাবদ সাড়ে ১০ হাজার টাকার সমপরিমাণ ৫০০ সৌদি রিয়াল নিজ দায়িত্বে সঙ্গে নিতে হবে। ২০১৬ সালে ‘এ’ প্যাকেজের মূল্য ছিল জনপ্রতি ৩ লাখ ৬০ হাজার ২৮ টাকা। ‘বি’ প্যাকেজের মূল্য ছিল ৩ লাখ ৪ হাজার ৯০৩ টাকা।
চলতি বছর হজ প্যাকেজের মূল্য প্রায় ১০ হাজার টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। হজযাত্রীদের প্রতিটি ট্রলি ব্যাগের মূল্য বাড়িয়ে ২ হাজার ৫০০ টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে। চলতি বছর হজযাত্রীদের বিমান ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে (বিভিন্ন ট্যাক্সসহ) জনপ্রতি ১ লাখ ২৬ হাজার ৬৯৫ টাকা ৭১ পয়সা। মক্কা-মদিনায় এবার হজযাত্রীদের বাড়ি ভাড়া ধরা হয়েছে জনপ্রতি ১ লাখ ৫০ হাজার ৫৯১ টাকা। বাড়ি ভেদে বাড়ি ভাড়ার অব্যয়িত অর্থ যদি থাকে, তা সৌদি আরবে হজযাত্রীদের ফেরত দেওয়া হবে।
প্রাক-নিবন্ধনের সময়ে প্রত্যেক হজযাত্রীকে নিবন্ধন ফিসহ ৩০ হাজার টাকা নির্ধারিত ব্যাংকে জমা দিতে হবে। প্যাকেজের অবশিষ্ট অর্থ আগামী ২০ মে’র মধ্যে ব্যাংকে জমা দিয়ে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। যে সব প্রাক নিবন্ধিত হজযাত্রী অবশিষ্ট অর্থ জমা দিয়ে বিষয়টি ব্যাংক নিবন্ধন সিস্টেমে নিশ্চিত করবেন না, তারা হজে অনিচ্ছুক বলে গণ্য হবেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে গত সপ্তাহে ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান বলেন, ‘হজ প্যাকেজ এবং হজ ও ওমরাহ নীতিমালা চূড়ান্ত করে অনুমোদনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হয়েছে। আগামী কেবিনেটের বৈঠকে তা উপস্থাপন করার কথা রয়েছে। এ বছরও সুষ্ঠুভাবে এ কার্যক্রম সম্পন্ন হবে।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "মন্ত্রিসভার পরবর্তী বৈঠকে উঠছে চূড়ান্ত হজ প্যাকেজ"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*