সংবাদ প্রকাশের পর বন্ধ হলো লোহাগড়া পৌরসভার অবৈধ টোল বাণিজ্য

সংবাদ প্রকাশের পর বন্ধ হলো লোহাগড়া পৌরসভার অবৈধ টোল বাণিজ্য

এমএম রাশেদ (স্টাফ রিপোর্টার) ॥ গত ১৯ মার্চ দৈনিক গ্রামের কাগজসহ কয়েকটি স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় লোহাগড়ায় পৌরসভার নামে কোটি টাকার অবৈধ টোল বাণিজ্য শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর ওই দিন থেকে বন্ধ হলো লোহাগড়া পৌরসভার নামে সড়ক ও জনপথের অবৈধ টোল আদায়।

পৌর মেয়র তার অনুগত কয়েকজন যুবকের মাধ্যমে পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে এই ‘টোল’ আদায় করে আসছিলেন। গত ১৯ মার্চ দৈনিক গ্রামের কাগজ পত্রিকায় ‘লোহাগড়ায় পৌরসভার নামে কোটি টাকার অবৈধ টোল বাণিজ্য?’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর এলাকায় তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের নজরে এলে টোল আদায় বন্ধ হয়। বিষয়টি তদন্তে একজন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে দায়িত্ব দিয়েছেন নড়াইলের জেলা প্রশাসক এমদাদুল হক চৌধূরী।
এ দিকে প্রকাশিত সংবাদে ক্ষিপ্ত হন, পৌর মেয়র ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আশরাফুল আলমসহ সুবিধাভোগী তার অনুগতরা। তিনি ২০মার্চ ওই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে নড়াইল ও লোহাগড়ার প্রিন্ট ও ইলেট্রোনিক্্র মিডিয়ার ৫৪ জন উপস্থিত ছিলেন। সেখানে অবৈধ টোল আদায় বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে শুধু সাংবাদিক (রিপোর্টারের) উদ্দেশ্যে ক্ষিপ্রোতার সহিত আক্রমনাত্মক মনোভাবে সম্পুর্ন্য মিথ্যা অসত্য কল্পকাহিনীর বক্তব্য পাঠ করেন। সে বক্তব্য গুলি মেয়রের পোষ্য চাটুকার দু’তিনজন অসাংবাদিক তাদের অনৈতিক সুবিধা আদায়ের লক্ষে স্থানীয় কয়েকটি পত্রিকায় তুলে ধরেন। সংবাদ সম্মেলন শেষে তিনি পৌর শহর এলাকায় একটি বিক্ষোভ মিছিলও বের করেন। মেয়রের নির্দেশে মিছিলে গ্রামের কাগজ প্রত্রিকার লোহাগড়া প্রতিনিধি শাহজাহান সাজু’র প্রান নাশের বিষয়টি অর্ন্তভুক্ত করে শ্লোগান দিতে থাকেন তার অনুগত লোকজন।
উল্লেখ্য লোহাগড়া পৌর এলাকায় ঢুকলেই সিএনজি অটোরিকশা, টেম্পু, জেএসএ, ইজিবাইক, নছিমন. করিমন, আলমসাধু, প্রাইভেটকার ,মাইক্রোবাস, মিনিবাস ও ছোট ট্রাকের গতিরোধ করে ১০-২০ টাকা, বড় ট্রাক ও বহিরাগত বাস থেকে ৪০ টাকা এবং গরুর ট্রাক প্রতি ১’শ থেকে ২’শ টাকা পর্যন্ত আদায় করতেন মেয়রের লোকজন।
সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের বিনা অনুমতিতে মেয়র মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে টোল আদায়ের জন্য ৪টি টেম্পু ষ্টান্ড নাম মাত্র ইজারা! এবং কোন প্রকার ইজারা ছাড়াই সড়ক ও জনপথ (সওজ)’র দু’টি স্থানে টোলঘর বসিয়ে পৌর বহিরাগত কিছু যুবকের মাধ্যমে টোলের টাকা আদায় করে আসছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
basic-bank

Be the first to comment on "সংবাদ প্রকাশের পর বন্ধ হলো লোহাগড়া পৌরসভার অবৈধ টোল বাণিজ্য"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*